বৃহস্পতিবার, ১৮ই আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
২রা জুলাই, ২০২০ ইং
১০ই জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী
ads

শরীরের ৭ টি জটিল রোগ প্রতিরোধ করে টক দই

রাসেল, রাজশাহী প্রতিনিধি: টক দই! অনেকে হয়ত পছন্দ করেন আবার অনেকে অপছন্দ করেন। স্বাদে না হলেও টক দই কিন্তু গুণে অনন্যা যা মিষ্টি দই এর মাঝে পাবেন না। তবে জানেন কি মিষ্টি দই স্বাদে মিষ্টি লাগে বলে আমরা বেশি পছন্দ করে থাকি। যার কারণে টক দই আমরা তেমন খেতে অভ্যাস্ত নই। আপনার দেহে কিছু রোগ এর সমস্যা হয়ত রয়েছে যার কারণে প্রতিনিয়ত আপনি কষ্টভোগ করছেন নতুবা প্রতিদিনই ওষুধ খাচ্ছেন। হয়ত কিছু সমাধান পাচ্ছেন তবে তা পুরোপুরি নয়। আপনি হয়ত জানেন না যে মাত্র ১ কাপ টক দই আপনার এমন কয়েকটি জটিল রোগ হতে মুক্তি দিতে পরে।

তবে আসুন জেনে নেই টকদই যেসব জটিল রোগের সমস্যা সমাধান করে থাক।: ১। টকদই দাঁত ও মাড়ি সুরক্ষায় দারুন উপকারি। টক দই ক্যালসিয়াম ও প্রোটিনের অনেক ভালো একটি উৎস। এই দুটি উপাদান দাঁত ও মাড়ির সুরক্ষায় অনেক বেশি কার্যকর। তাই রোজ ১ কাপ করে টক দই খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুললে মন্দ হয় না। ২। হজমের সমস্যা সমাধান করতে টক দই এর জুড়ি নেই। টক দইয়ের এনজাইম বদহজম প্রতিরোধে সহায়তা করে থাকে। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে করতেও অপরিসীম ভূমিকা পালন করে থাক।

৩। টক দই রক্তে কোলেস্টেরল এর মাত্রা নিয়ন্ত্রণে করে থাকে। এতে ফ্যাটের পরিমাণ কম থাকে ফলে রক্তের ক্ষতিকর কোলেস্টেরল এলডিএল কমাতে সহায্যে করে থাকে। ৪। এক গবেষণায় দেখা গেছে যে যার উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভূগে থাকেন তারা রোজ ১ কাপ করে টক দই খান তাহলে তাদরে রক্তচাপের সমস্যা অন্যান্য রক্তচাপের রোগীদের তুলনায় প্রায় ৩০ শতাংশ কমে যাবে।

৫। টক দইয়ে রয়েছে ল্যাক্টো-ব্যাসিলাস অ্যাসিডোফিলাস যা ইস্ট নষ্ট করতে থাকে। যাদের এই ইস্টের সমস্যা রয়েছে তারা প্রতিদিন মাত্র ছয় আউন্স টক দই খেলে দূর হবে ইস্টের যাবতীয় সমস্যা। ৬। হাড়ের সমস্যা দূর করতে টক দইয়ে গুরুত্ব অপরিসীম। কেননা টক দইয়ে রয়েছে ক্যালসিয়অম ও ভিটামিন ডি যা শরীরের হাড়ের গঠনকে মজবুত করতে সহায়তা করে থাকে।

৭। টক দই কোলন ক্যান্সার প্রতিরোধে অন্যতম দাওয়াই হিসেবে কাজ করে। টক দইয়ে রয়েছে ল্যাক্টোব্যাসিলাস নামক ব্যাকটেরিয়া যা শরীরে ভালো ব্যাক্টেরিয়ার পরিমাণ বৃদ্ধি করে কোলন এর সুরক্ষা নিশ্চিত করে থাকে।

শেয়ার করুন:

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

আরও পড়ুন:

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৪৫,৪৮৩
সুস্থ
৫৯,৬২৪
মৃত্যু
১,৮৪৭

বিশ্বে

আক্রান্ত
১০,৮১১,২০৫
সুস্থ
৬,০৩৩,৫১৩
মৃত্যু
৫১৯,০৯৫

আর্কাইভ