শুক্রবার, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১১ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
ads

বিদ্যুৎ বিল মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্ট আর্থনীতিক সংকটে নাগরিক দুর্ভোগ কমাতে নানাবিধ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেব মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। এর মধ্যে ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত তিন মাসের আবাসিক বিদ্যুতের বিল বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়।

কিন্তু তা বাস্তবায়ন করতে গিয়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ কোম্পানিগুলো অনেকটাই গ্রাহকদের গলা টিপে ধরেছে। কারণ গততিন মাসের বিলে অনেক গ্রাহকের দশ/ বারো গুন পর্যন্ত বেশি এসেছে বলে জানা যায়।

এমন চিত্র ঢাকা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড (ডেসকো) ও ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ডিপিডিসি) ও বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (আরইবি) ৮০টি সমিতির গ্রাহকের। তাছাড়া দেশের উত্তর দক্ষিণের কিছু জেলা থেকেও এমন অভিযোগ পাওয়া যায়।

যদিও এই বিষয়ে বিদ্যুৎপ্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ অনলাইনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাড়তি বিল নিয়ে গ্রাহক অসন্তোষ দ্রুত নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানা গেছে। তার মতে, গ্রাহকের কেন এমন বিল দেওয়া হচ্ছে তা জানার গ্রাহকদের অধিকার রয়েছে। বিদ্যুৎ বিভাগও সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বেশি আসা বিল সমন্বয় করে নেওয়া হবে বলে জানান। গ্রাহককে উদ্বিগ্ন না হতে অনুরোধ জানান।

কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এভাবে বিল করার ক্ষমতা বিতরণ সংস্থাগুলোর নেই। জনগনের ওপর এমন অত্যাচার বিতরণ সংস্থাগুলো কোনভাবেই চাপিয়ে দিতে পারে না। তাই বলতেই হবে বিদ্যুৎ বিল এখন গ্রাহকদের জন্য মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Share with Others

শেয়ার করুন:

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

আরও পড়ুন:

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৬১,৩৩১,৭০৬
সুস্থ
৪২,৪১১,৩০৮
মৃত্যু
১,৪৩৮,০৯৬

আর্কাইভ