বুধবার, ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
৯ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
ads

পত্তন ইউনিয়নে হাট-বাজারে প্রতিদিন প্রচুর লোক সমাগম

স্থানীয় প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাসে প্রার্দুভাবে পুরো দেশ যেখানে স্থবির, সরকারি ভাবে বিভিন্ন নির্দেশনা রয়েছে ঘরে থাকার জন্য। সেখানে সরকারের সকল নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে বিজয়নগর উপজেলার পত্তন ইউনিয়নের হাট বাজারে লোকের সমাগমের কোন দিকেই কমতি নেই। প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতন হতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলেও তা মানছেন না কেউ।

পুলিশ প্রশাসন জনসচেতনতায় মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ

বিশেষ করে সকাল আর বিকাল হলেই হাট বাজার গুলোতে মানুষের ঢল নামে। যেন এসব এলাকায় ঈদের আমেজ চলতেছে।

             ছবি: চায়ের দোকানে  আড্ডায় ব্যাস্ত

ইউনিয়নের হাট বাজার গুলোতে এমন দৃশ্য প্রতিদিনই পরিলক্ষিত হয়। প্রয়োজন ছাড়াও অনেকেই চা স্টল ও অন্যান্য স্থানে বসে আড্ডায় মত্ত থাকেন।

হাট বাজার গুলো প্রশাসনিক ভাবে প্রতিদিন মনিটরিং করা হচ্ছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রশাসনের পক্ষ থেকে যখন হাট বাজারে মনিটরিংয়ে আসেন। তখন মানুষ দোকান পাট বন্ধ করে পালিয়ে যায়। আবার যখনই প্রশাসনের লোকজন বাজার ছেড়ে চলে যায়। সঙ্গে সঙ্গে দোকান পাট খোলা হয়। আর মানুষ জড়ো হতে থাকেন।

প্রশাসন চলে গেলে দোকানপাট চলছে

সচেতন মহলের দাবি, প্রশাসনিক ভাবে মানুষের গণজমায়েতের বিষয়টি নিয়ে আরো কঠোর হওয়া দরকার। আর প্রয়োজনে প্রয়োজনীয় দোকান গুলো সকালে ৩ ঘন্টা আর বিকালে ২ ঘন্টা সময় বেঁধে দিয়ে মানুষের কেনাকাটার সুযোগ পাবে। আর এই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে মানুষ প্রয়োজনীয় কেনাকাটা শেষ করে ঘরে ফিরে যাবে।

ছবিঃনিত্যপ্রয়োজনীয় সবজির বাজারে কোন ক্রেতা নেই

এতে করে মানুষ অপ্রয়োজনে হাট বাজারে আসা বন্ধ হয়ে যাবে। তাই প্রশাসনের নিকট সচেতন মহলের দাবি, যেন হাট বাজারে মানুষের সমাগমের দিকটি গুরুত্ব দিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা এবং আরো কঠোর হয়ে জন সমাগমকে দূরতে করণে বিহীত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

Share with Others

শেয়ার করুন:

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

আরও পড়ুন:

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৬০,২৫৮,২৯৮
সুস্থ
৪১,৬৮৮,৮৭০
মৃত্যু
১,৪১৮,১২৬

আর্কাইভ