বৃহস্পতিবার, ১৮ই আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
২রা জুলাই, ২০২০ ইং
১০ই জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী
ads

কৃষকের ধান কেটে ঘরে পৌঁছে দিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক

কাজী খলিলুর রহমান: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউনে সারাদেশ। বোরো মৌসুম শুরু হওয়ায় শ্রমিক সংকটে দিশেহারা কৃষক। এক স্থান থেকে অন্যস্থানে শ্রমিকরা যেতে না পারায় পাকা ধান ঘরে তোলা নিয়ে চিন্তিত কৃষকের মুখে হাসি ফুটাতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের পঞ্চকুটি গ্রামের কৃষক লিটন মিয়া ধান কাটতে না পারায় ক্ষেতের পাকা ধান নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল।

জনপ্রতি ৫০০ টাকা পারিশ্রমিক দিয়ে ৮০ শতাংশ জমির পাকা ধান শ্রমিক দিয়ে কাটানো লিটন মিয়ার পক্ষে সম্ভব ছিল না, তার মধ্যে করোনার প্রাদুর্ভাবে লোকও পাওয়া যায় না। এই পরিস্থিতিতে যখন দিশেহারা, তখন লিটন মিয়ার পাশে এসে দাঁড়ালেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত শোভন ও তাদের সঙ্গে থাকা ছাত্রলীগ কর্মীরাও।

শুত্রুবার কৃষক লিটন মিয়ার ৮০ শতাংশ পাকা ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। তারা সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত কাজ করেন।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল বলেন, ‘কৃষকদের ধান কাটায় সহযোগিতা করতে নির্দেশ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। তারপর থেকেই জেলা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা আন্তরিকতার সঙ্গে অসহায় কৃষকদের দিকে এগিয়ে এসেছেন।’

কৃষক লিটন মিয়া বলেন, ‘ধান কাটা নিয়ে মহাবিপদে ছিলাম। ছাত্রলীগের কর্মীরা এসে আমাকে মহা বিপদ থেকে বাঁচাল। আমি এখন অনেক খুশি। আমি জেলা ছাত্রলীগের জন্য দোয়া করি।’

শেয়ার করুন:

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

আরও পড়ুন:

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৫৩,২২৭
সুস্থ
৬৬,৪৪২
মৃত্যু
১,৯২৬

বিশ্বে

আক্রান্ত
১০,৮৫০,২১০
সুস্থ
৬,০৬৭,৬৯৮
মৃত্যু
৫১৯,৯৭৭

আর্কাইভ