শুক্রবার, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৮ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
ads

চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপনির্বাচনে ২ নেতার মর্যাদার লড়াই চলছে

দেশটুডে২৪ নিউজ: চট্টগ্রাম-৮ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। আসনের ১৭০ কেন্দ্রের সবগুলোতেই ভোট হচ্ছে ইভিএমের (ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন) মাধ্যমে।

সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলবে।

সাধারণ ভোটারদের অনাগ্রহ এবং প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর পাল্টাপাল্টি অভিযোগের পরই আজ হচ্ছে দুই প্রার্থীর মর্জাদার লড়াই।

নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের মোছলেম উদ্দিন আহমদ ও বিএনপির আবু সুফিয়ান।

এদিকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য পুলিশের পাশাপাশি মোতায়েন করা হয়েছে বিজিবি ও র‌্যাব।

এ ছাড়া ১৬ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও দুই জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বিজিবির সঙ্গে মোবাইল টিমে রয়েছে।

এর আগে রোববার বিকাল থেকেই বিজিবি নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন স্থানে টহল শুরু করে।

গত বছরের ৭ নভেম্বর ভারতে চিকিৎসাধীন এই আসনের সংসদ সদস্য জাসদের কার্যকরী সভাপতি মঈনউদ্দীন খান বাদল মারা যাওয়ায় চট্টগ্রাম-৮ আসনটি শূন্য হয়। এর পর ১ ডিসেম্বর এ আসনে উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

আসনটি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৩, ৪, ৫, ৬ ও ৭নং ওয়ার্ড এবং বোয়ালখালী উপজেলার কধুরখীল, পশ্চিম ও পূর্ব গোমদণ্ডী, শাকপুরা, সারোয়াতলী, পোপাদিয়া, চরণদ্বীপ, আমুচিয়া ও আহলা করলডেঙ্গা ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত।

মোট ভোটার ৪ লাখ ৭৫ হাজার ৯৮৮। এর মধ্যে পুরুষ ২ লাখ ৪১ হাজার ৯২২ ও নারী ২ লাখ ৩৪ হাজার ৭৪ জন। শুধু বোয়ালখালী উপজেলায় ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৬৪ হাজার।

এদিকে সাধারণ ভোটাররা জানান, মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থী দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ ও বিএনপির প্রার্থী আবু সুফিয়ানের মধ্যে। এর বাইরে আরও চার প্রার্থী থাকলেও তাদের প্রচার তেমন নেই।

ওই চার প্রার্থী হলেন- বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ) চেয়ারম্যান এসএম আবুল কালাম আজাদ, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের সৈয়দ মোহাম্মদ ফরিদ আহমদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী এমদাদুল হক ও ন্যাপের বাপন দাশগুপ্ত।

জেলা নির্বাচনী অফিসের কর্মকর্তারা জানান, প্রিসাইডিং অফিসারের নেতৃত্বে কর্মকর্তারা রোববার বিকালেই নির্বাচনী সামগ্রী নিয়ে কেন্দ্রে কেন্দ্রে যান। কেন্দ্রে ইভিএম পরিচালনায় কারিগরি সহযোগিতা করবেন সেনাসদস্যরা। প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে ৪-৫ জন পুলিশ ও ১১ জন আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

মোতায়েন করা হয়েছে ৫ প্লাটুন বিজিবি ও ৬ প্লাটুন র‌্যাব। এ ছাড়া ১৬ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও দুজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বিজিবির সঙ্গে মোবাইল টিমে রয়েছে।

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মুনীর হোসাইন খান সোমবার বলেন, খুব সুন্দর নির্বাচনী পরিবেশ রয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এলাকায় টহল দিচ্ছে।

Share with Others

শেয়ার করুন:

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

আরও পড়ুন:

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৬৫,৮৪১,১৪৭
সুস্থ
৪৫,৬১০,৮৫২
মৃত্যু
১,৫১৬,৮৭৯

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১