শনিবার, ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
৮ই আগস্ট, ২০২০ ইং
১৭ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
ads

ত্রিফলায় দুর্বার বার্সা

একক নৈপুণ্যে শুরুটা করলেন আঁতোয়া গ্রিজমান। দ্বিতীয়ার্ধে বার্সেলোনার আক্রমণত্রয়ীর দারুণ বোঝাপড়ায় গোলের দেখা পেলেন অন্য দু’জন, লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেজ। এইবারকে উড়িয়ে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলের শীষে উঠে এলো বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। শনিবার আন্তর্জাতিক বিরতির পর প্রথম ম্যাচে এইবারের মাঠে থেকে ৩-০ গোলের দাপুটে জয় নিয়ে ফিরেছে বার্সা। এই প্রথম একই ম্যাচে গোল পেলেন গ্রিজমান, মেসি ও সুয়ারেজ। নবাগত গ্রিজমানের সঙ্গে অধিনায়ক মেসির দ্বন্দ্বের গুঞ্জনে বার্সার নতুন ত্রিফলার রসায়ন জমবে কি না তা নিয়ে সন্ধিহান ছিলেন অনেকেই। সেই সংশয় মুছে গেল কাল। দলের তিন গোলেই অবদান ছিল বার্সার জার্সিতে সেরা ম্যাচ খেলা গ্রিজমানের।

গত মৌসুমে লিগের শেষ রাউন্ডে বার্সেলোনাকে ঘরের মাঠে পেয়ে ২-২ গোলে রুখে দিয়েছিল এইবার। কাল গ্রিজমানের দারুণ নৈপুণ্যে ১৩ মিনিটেই এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। নিজেদের সীমানা থেকে স্বদেশি ডিফেন্ডার লংলের উঁচু করে বাড়ানো থ্রু বল প্রথম টোকায় ডি-বক্সে বাড়িয়ে দ্বিতীয় টোকায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে জোরালো শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ফরাসি ফরোয়ার্ড। গ্রিজমানের এটি নতুন ঠিকানায় চতুর্থ গোল। ৩১ মিনিটে একজনকে ফাঁকি দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে গোলকিপারকেও প্রায় কাটিয়ে ফেলেছিলেন মেসি। তবে হাত বাড়িয়ে তার পা থেকে বল সরিয়ে দেন সার্ব গোলকিপার মার্ক দিমিত্রোভিচ।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে সুয়ারেজের শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলকিপার। ৫৮ মিনিটে গোছানো আক্রমণে ব্যবধান দ্বিগুণ করে বার্সেলোনা। ডি-বক্সে সুয়ারেজের কাছ থেকে বল পেয়ে বাঁ দিকে বাড়ান গ্রিজমান। ঠাণ্ডা মাথায় কোনাকুনি শটে গোলকিপারকে পরাস্ত করেন অরক্ষিত মেসি। চলতি মৌসুমে এটি তার দ্বিতীয় গোল। এইবারের বিপক্ষে লিগে ১০ ম্যাচে মেসির গোল হল ১৬টি।

আট মিনিট পর আবারও বার্সেলোনার আক্রমণত্রয়ীর ঝলক এবং স্কোরলাইন ৩-০। মাঝমাঠের আগে থেকে গ্রিজমানের থ্রু বল ধরে ডি-বক্সে ঢুকে গোলকিপারকে একা পেয়েছিলেন মেসি। তবে আরও নিশ্চিত হতে শট না নিয়ে বাঁ দিকে সুয়ারেজকে পাস দেন তিনি। প্রথম ছোঁয়ায় কোনাকুনি শটে স্কোরলাইনে নাম লেখান উরুগুয়ের স্ট্রাইকার। আসরে এটা তার পঞ্চম গোল। এ জয়ে নয় ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠে এসেছে বার্সা। আট ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে রিয়াল মাদ্রিদ।

এদিকে নেইমারের বার্সেলোনায় ফেরার বিষয়ে চাঞ্চল্যকর এক তথ্যই দিয়েছেন মেসি। তার মতে বার্সেলোনার টিম ম্যানেজমেন্টের অনেকেই নেইমারকে দলে ফেরাতে চান না। যে কারণে দলবদলে নেইমারকে নিতে পারেনি বার্সেলোনা।

শেয়ার করুন:

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

আরও পড়ুন:

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
১৯,৫৪৩,৫৬২
সুস্থ
১২,৫৪৫,৫৬৭
মৃত্যু
৭২৪,০৭৫

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১