শনিবার, ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
৮ই আগস্ট, ২০২০ ইং
১৭ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
ads

ক্রিকেটাররা সরফরাজের পাশে সাবেক

তীব্র সমালোচনার মুখে পাকিস্তানের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব হারিয়েছেন সরফরাজ আহমেদ। ওয়ানডে ফরম্যাটেও নেতৃত্ব হারানোর মুখে দাঁড়িয়ে তিনি। দলনায়কের পদ থেকে তাকে এভাবে ছেঁটে ফেলায় হতাশা প্রকাশ করেছেন দেশটির সাবেক ক্রিকেটাররা। তার পাশে দাঁড়িয়েছেন কিংবদন্তি জাভেদ মিয়াঁদাদ, মঈন খান, রশিদ লতিফরা।

এরই মধ্যে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক ঘোষণা করেছে পাক ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। আগামী নভেম্বর-ডিসেম্বরে অস্ট্রেলিয়া সফর করবে পাকিস্তান। সেখানে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি ও দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজ খেলবেন তারা। অজিদের বিপক্ষে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে সফরকারীদের নেতৃত্ব দেবেন বাবর আজম। আর অভিজাত সংস্করণে অধিনায়কত্ব করবেন আজহার আলি।

পাকিস্তানের সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান হলেও বাবর আজমকে অধিনায়ক হিসেবে চান না মিয়াঁদাদ। বড়েমিয়া বলেন, আজহারকে টেস্ট অধিনায়ক করা হয়েছে, সেটি ঠিক আছে। তবে বাবরকে টি-টোয়েন্টির নেতৃত্বে আনা উচিত হয়নি। এটি তার পারফরম্যান্সে প্রভাব ফেলবে। সব মিলিয়ে ওর ওপর চাপ বাড়বে।

সাবেক পাক উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মঈন বলেন, ব্যাট হাতে ছন্দে ফিরতে সরফরাজকে সময় দেয়া উচিত ছিল। কারণ সে অসাধারণ এক অধিনায়ক। ফর্ম হারালে সিনিয়রদের পাশে দাঁড়ানো উচিত পিসিবির।

বাবরকে টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক করাটা মানতে পারছেন না আরেক উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান রশিদ। তিনি বলেন, বাবর নিজের জন্য খেলে। সরফরাজ খেলত দলের জন্য। টিমের স্বার্থে নিজের পছন্দের জায়গায় অন্যকে ব্যাটিংয়ে পাঠাত সে। এভাবে বাদ পড়াটা প্রাপ্য ছিল না ওর।

ইংল্যান্ড ওয়ানডে বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে সেমিফাইনালে তুলতে পারেননি সরফরাজ। তখন থেকেই তার নেতৃত্ব ও পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। বিশেষ করে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে হাই তোলা নিয়ে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি।

তা সত্ত্বেও ঘরের মাঠে শ্রীলংকার বিপক্ষে দলনায়ক থাকেন সরফরাজ। তার অধীনেই তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে লংকানদের ধবলধোলাই করেন স্বাগতিকরা। তবে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে আনকোরা দলটির কাছে হোয়াইটওয়াশ হন তারা।

সফরকারীদের বিপক্ষে দুই সিরিজে তার পারফরম্যান্সও ছিল বিশ্রি। প্রয়োজনের সময় চরম দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দেন তিনি। এ কারণে তাকে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব থেকে সরাতে চান পাকিস্তানের বর্তমান কোচ মিসবাহ-উল হক। শেষ পর্যন্ত হারাতে হলো সরফরাজকে।

শেয়ার করুন:

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

আরও পড়ুন:

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
১৯,৬৩৮,৮০৮
সুস্থ
১২,৬১৫,৪৯৫
মৃত্যু
৭২৫,৮৭৭

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১